সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
কলাপাড়ায় খাল দখল করে তোলা বহুতল ভবন ভেঙ্গে ফেলছে জেলা প্রশাসন।। কচুয়ায় অগ্নিকান্ডে পুড়েছে ৫টি বসতঘর কচুয়ার তেতৈয়া সপ্রাবি’র ভোট কেন্দ্র স্থানাস্তরের চেষ্টার অভিযোগ ॥ ক্ষোভ চরমে! কলাপাড়ায় করোনাকালীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন। কলাপাড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ।। কলাপাড়ায় গভীর রাতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন, অর্ধলক্ষ টাকা চুরির অভিযোগ।। জীববৈচিত্র্য রক্ষায় সৈকতের প্লাস্টিক বর্জ্য ও ছেড়া জাল অপসারন।। কলাপাড়ায় ফৌজদারী অপরাধে প্রাথমিক প্রধান শিক্ষিকা শ্রীঘরে।। বেলাবতে দৈনিক কালের নতুন সংবাদ পত্রিকার ৪ র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত কলাপাড়ায় ১০ অসচ্ছল সাংস্কৃতিক কর্মীকে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক প্রদান।। 

করোনায় আক্রান্ত ৪ ঘন্টার ব্যবধানে হয়ে বাবা-ছেলের মৃত্যু

মাহমুদ আহসান হাবিব
ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাবা-ছেলের মৃত্যু হয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার রাতে হরিপুর উপজেলার দনগাঁও গ্রামের ইয়াকুব আলী (৭০) মারা যান। একই সময়ে ছেলে আজগর আলী (৫৫) গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) এ নেয়া হয়। এর ৪ ঘন্টা পরই রাত সাড়ে ১২টায় হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছেলে আজগর আলীও মারা যান। বাবা ছেলের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মৃত আজগর আলী হরিপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও স্থানীয় শীতলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। ঠাকুরগাঁও স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে তাঁদের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে।
স্থানীয়রা জনায়, ইয়াকুব আলী কয়েক দিন ধরে জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। গত ২৫ জুন তিনি হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে যান। উপসর্গ দেখে সেখানের চিকিৎসক তাঁর করোনা পরীক্ষা করতে পরামর্শ দেন। পরে স্বজনেরা ইয়াকুব আলীকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে নমুনা পরীক্ষায় তাঁর শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এদিকে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে গত ৩০ জুন হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক আজগর আলীর নমুনা পরীক্ষা করেন। নমুনা পরীক্ষায় তাঁর শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। শনাক্তের পর সেদিনই তাঁকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ঠাকুরগাঁও জেলা সিভিল সার্জন ডা: মাহফুজার রহমান সরকার জানান, জেলায় শুক্রবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ২৭৬টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে ১২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ৪৫ দশমিক ২৮ শতাংশ। স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য অনুযায়ী এ সময় করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলার কেউ মারা যাননি। এ পর্যন্ত জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৫০৯ জনের। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৪৫ জন। মারা গেছেন মোট ৮৩ জন।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত